Welcome to Our Blog

বিস্ময় প্রতিভার কাছে পরাস্ত কম্পিউটার!

by Admin for dhakanews 27-Mar-2017 0 Comments

ভারতের বেঙ্গালুরুর গোঁড়া কন্নড় পরিবারে জন্ম | বড় হয়ে পুজা অর্চনার কাজ শেখাই ছিল ভবিতব্য | কিন্তু বিদ্রোহ করে পারিবারিক পৌরহিত্য পেশাকে না নিয়ে সেই তরুণ যোগ দিয়েছিল সার্কাসে | প্রথমে ট্রাপিজের খেলা | তারপরে সিংহের প্রশিক্ষক |

নিয়ম ভাঙার খেলায় মেতে ওঠা সেই যুবক একদিন চমকে গেল তার মেয়ে শকুন্তলার ক্ষমতা দেখে | তিন বছরের শিশুকন্যা সার্কাসের তাবুতে বসে বাবার সঙ্গে তাসের খেলা খেলত | ওই শিশুর কাছে হেরে ভূত হতেন বাবা | একরত্তি শিশুর স্মরণশক্তির কাছে হার মানতেন বাবা | মেয়ের ঐশ্বরিক ক্ষমতা দেখে সার্কাস ছেড়ে দিলেন তাঁর বাবা | শুরু করলেন মেয়েকে নিয়ে রোড শো | যেখানে নম্বর মনে রাখার অদ্ভুত খেলা দেখিয়ে সবাইকে হতবাক করে দিতে শকুন্তলা |

অন্য বিস্ময় বালিকার মতো বড় হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে হারিয়ে যায়নি শকুন্তলার ক্ষমতা | বরং সময়ের স্রোতে তা আরও বিকশিত হয়েছে | বালিকা শকুন্তলার স্মরণশক্তির সাক্ষী থেকেছে মাইসোর বিশ্ববিদ্যালয় এবং আন্নামালাই বিশ্ববিদ্যালয় |

১৯৭৭-এ শকুন্তলা দেবী পাল্লা দিলেন কম্পিউটারের সঙ্গে | ডালাসে হারিয়ে দিলেন যন্ত্র গণককে | কম্পিউটারের কম সময়ে বলে দিলেন ১৮৮১৩২৫১৭-এর cube root | আর এক মার্কিন বিশ্ববিদ্যালয়ে শকুন্তলা দেবীকে বলা হল- ৯১৬৭৪৮৬৭৬৯২০০৩৯১৫৮০৯৮৬৬০৯২৭৫৮৫৩৮০১৬২৪৮৩১০৬৬৮০১৪৪৩০৮৬২২৪০৭১২৬৫১৬৪২৭৯৩৪৬৫৭০৪০৮৬৭০৯৬৫৯৩২৭৯২০৫৭৬৭৪৮০৮০৬৭৯০০২২৭৮৩০১৬৩৫৪৯২৪৮৫২৩৮০৩৩৫৭৪৫৩১৬৯৩৫১১১৯০৩৫৯৬৫৭৭৫৪৭৩৪০০৭৫৬৮১৬৮৮৩০৫৬২০৮২১০১৬১২৯১৩২৮৪৫৫৬৪৮০৫৭৮০১৫৮৮০৬৭৭১-এর 23rd root বলতে | সঠিক উত্তর দিতে তিনি সময় নিয়েছিলেন ৫০ সেকেন্ড | তাঁর দেওয়া ৫৪৬৩৭২৮৯১ উত্তরটা যে ঠিক সেটা জানাতে কম্পিউটার সময় নিয়েছিল আরও ১০ সেকেন্ড বেশি | এবং তারজন্য তাকে দিতে হয়েছিল মোট ১৩০০ ইনস্ট্রাকশন |

আমেরিকার পরে এবার ইংল্যান্ডের পালা | ১৯৮০ সালের ১৮ জুন তাঁকে লন্ডনের Imperial College বলল দুটি সংখ্যার মধ্যে গুণ করতে |

সংখ্যা দুটি কী কী ছিল ?

৭‚৬৮৬‚৩৬৯‚৭৭৪‚৮৭০ আর ২‚৪৬৫‚০৯৯‚৭৪৫‚৭৭৯ |

মাত্র ২৮ সেকেন্ডের মধ্যে শকুন্তলা দেবী দিলেন উত্তর-১৮‚৯৪৭‚৬৬৮‚১৭৭‚৯৯৫‚৪২৬‚৪৬২‚৭৭৩‚৭৩০ |

এই ঘটনা জায়গা করে নেয় গিনেস বুকে | সংখ্যা নিয়ে খেলা করা এই মানবী আবার জ্যোতিষচর্চাও করতেন | জন্ম সময় আর স্থান বিচার করে বলে দিতেন ভূত ভবিষ্যৎ | এই আজব মিশেল ও অবস্থান তাঁর প্রতিভার মতোই বিরল ও দুর্লভ | তাঁর লেখা বই-এর মধ্যে আছে Fun with Numbers, Astrology for You, Puzzles to Puzzle You এবং Mathablit |

চার বছর আগে ৮৩ বছর বয়সে প্রয়াত হন এই আশ্চর্য মানবী | শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়ে ভর্তি হয়েছিলেন হাসপাতালে | সমস্যা ছিল হৃদযন্ত্র আর কিডনিরও | বার্ধক্যজনিত অসুস্থতার কাছে হার মানলেন হিউম্যান কম্পিউটার | ক্ষুরধার প্রতিভার জন্য এই তকমাই দেওয়া হয়েছিল গণিতকন্যাকে |

More from my site

Leave a Reply

Blog Categories

Popular Posts

Recent Offer